তৃণমূল কংগ্রেসে থেকে নির্দল প্রার্থী হিসেবে লড়াই করা বামাচরণ মজুমদার,পরিবারকে তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বহিষ্কার করা হলো

তৃণমূল কংগ্রেসে থেকে নির্দল প্রার্থী হিসেবে লড়াই করা বামাচরণ মজুমদার, তাঁর পুত্রবধূ অর্পিতা মজুমদার সহ পুরো পরিবারকে তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বহিষ্কার করা হলো বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে।

রাজ্যের আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রার্থী তালিকা পছন্দ না হওয়ায় একাধিক এলাকায় নির্দল প্রার্থী দিয়েছে শাসক থেকে নিরোধী দলের কর্মীরা। তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে জেলা নেতৃত্ব মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষদিনেও নির্দেশ দিয়েছিল দলীয় কর্মীরা যেন নির্দল প্রার্থী থেকে তাঁদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেয়। না হলে তাঁদের দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।কিন্তু সেই সতর্কবার্তায় কাজ না হওয়ায় আরও ১৪ জন কর্মীকে দল থেকে সাসপেন্ড করার কথা জানাল বীরভূম জেলা তৃণমূলের কোর কমিটি।

নির্দল নিয়ে যত বিড়ম্বনা তৃণমূল কংগ্রেসের অন্দরে। ভোটের আগে থেকে কড়া বার্তা দিয়ে নির্দল হিসাবে দাঁড়ানো বন্ধ হয়নি। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন দল থেকে বহিষ্কারও করা হয়েছে। তারই মধ্যে এবার দল বিরোধী কার্যকলাপ এর জন্য রামপুরহাট ১নং ব্লকের আয়াস অঞ্চলের স্বাধীনপুর গ্রামের তৃণমূল কংগ্রেসের সদস্য বামাচরন মজুমদার ও তার পুত্র বধু অর্পিতা সহ পরিবারের যারা তৃণমূল কংগ্রেস করতেন তাদের সকলকে আজ তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বহিষ্কার করা হলো।

রামপুরহাট শহর তৃণমূল দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানালেন এলাকার বিধায়ক ও ডেপুটি স্পিকার ডঃ আশীষ বন্দ্যোপাধ্যায় বহিষ্কারের কথা জানালেন। এর আগে ৩০ জনকে দল থেকে বহিষ্কার করেছিল তৃণমূলের কোর কমিটি । এ নিয়ে মোট ৪৪ জনকে বহিষ্কার করল বীরভূম জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। পঞ্চায়েত ভোটের আগে একসঙ্গে এত জন কর্মী সাসপেন্ড হওয়ায় ভোটে বেশ কিছু জায়গায় তার প্রভাব পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন অনেকেই।

আরো পড়ুন