ব্যাংকিং সুরক্ষায় জোর রামপুরহাট মহকুমা পুলিশের, ব্যাংকগুকিতে নিয়মিত নজরদারি চালাবে পুলিশ

ব্যাংকিং সুরক্ষায় জোর রামপুরহাট মহকুমা পুলিশের, ব্যাংকগুকিতে নিয়মিত নজরদারি চালাবে পুলিশ

প্রীতম দাস রামপুরহাট :-

ববিগত বছরগুলিতে ব্যাংক ডাকাতি বা ব্যাংক জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে বেশ কয়েকটি। এবার তবে এই ঘটনাগুলি রুখতে জেলার ব্যাংক গুলির সুরক্ষা ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করার বিষয়টি নিয়ে নড়েচড়ে বসেছে বীরভূম জেলা পুলিশ। সেই মতো এদিন জেলার রামপুরহাট মহকুমার বিভিন্ন থানা এলাকায় থাকা ব্যাংক আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করল মহকুমা পুলিশ আধিকারিক ধীমান মিত্র।

এদিন রামপুরহাট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে বৈঠক ছিলেন রামপুরহাট মহকুমা এলাকার ব্যাংকের ম্যানেজাররা। পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন থানার আইসি দেবাশীষ চক্রবর্তী, মল্লারপুর থানার ওসি নিলুৎপল মিশ্র,মারগ্রাম থানার ওসি প্রদীপ ঘোষ,ময়ূরেশ্বর থানার ওসি জয়ন্ত দাস সহ রামপুরহাট থানার পুলিশ কর্মীরা। তবে
এত কিছুর পরেও ব্যাঙ্কে দুস্কৃতী হানা রোখা যায় কিনা তার উত্তর ভবিষ্যতেই মিলবে বলে মত ওয়াকাবহাল মহলের।

ব্যাঙ্কের সুরক্ষা বিষয়ক যে বিষয়গুলি নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয় তা যথেষ্টই গুরুত্বপূর্ণ। রামপুরহাট মহকুমা পুলিশ আধিকারিক ধীমান মিত্র জানিয়েছেন, ’ব্যাংকগুলির সুরক্ষা বিষয়ক মিটিং তাঁরা করেছেন ব্যাঙ্কের আধিকারিকদের সঙ্গে। মূলত ব্যাঙ্কের ইমার্জেন্সি এলার্ম ও সিসিটিভি সচল রাখা সহ ব্যাঙ্কে আর্মড সিকিউরিটি গার্ড নিয়োগ ইত্যাদি বিষয় গুলি নিয়ে মিটিংয়ে জোর দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট থানার নম্বর, দমকল কেন্দ্রের নম্বর, সিকিউরিটি এজেন্সির নম্বর ব্যাঙ্কের অভ্যন্তরে বিভিন্ন জায়গায় টাঙ্গিয়ে রাখার কথা বলা হয়েছে ব্যাংকগুলিকে।

এছাড়াও আধুনিক কাজে লাগিয়ে ব্যাঙ্কের সুরক্ষা ব্যবস্থা আরও জোরদার করার বিষয়গুলি নিয়ে মিটিংয়ে গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। এছাড়াও আগামী সোমবার থেকে রামপুরহাট মহকুমার প্রতিটি থানা এলাকায় থাকা ব্যাংকগুলিতে নিয়মিত ভিজিট করবে সংশ্লিষ্ট এলাকায় থানার আধিকারিকরা।

আরো পড়ুন